বেলজিয়ামের সংসদ নির্বাচনের প্রথম বাংলাদেশী প্রার্থী সরকারি বাঙলা কলেজের শিক্ষার্থী

অনলাইন ডেস্ক   

উত্তর-পশ্চিম ইউরোপের দেশ বেলজিয়ামে অনুষ্ঠিত হচ্ছে পার্লামেন্ট নির্বাচন। যেখানে প্রথমবারের মতো এমপি প্রার্থী হিসেবে অংশ নিলেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত শারমিন শায়লা। রবিবার (২৬ মে) স্থানীয় সময় সকাল থেকে এই ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

এবারই প্রথম কোনো বাংলাদেশি হিসেবে দেশটির ওয়ার্কার্স পার্টির (পিভিডিএ) পক্ষ থেকে মনোনয়ন নিয়ে তিনি এই নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। যদিও এর আগে গত বছর শায়লা এনটওয়ারপ থেকে কাউন্সিলর হিসেবে নির্বাচিত হন।

গত শনিবার (২৫ মে) সাংবাদিকদের শারমিন শায়লা বলেন, ‘প্রবাসী বাংলাদেশিরা বেলজিয়ামসহ সমগ্র ইউরোপে সম্মানের সঙ্গে প্রতিষ্ঠিত হোক- এটাই আমার চাওয়া। এক সময় এখানে প্রবাসী বাংলাদেশিরা বিভিন্ন ধরনের নির্যাতনের শিকার হতেন। অনেক সংগ্রামের মাধ্যমে আমরা সেসব পরিস্থিতি থেকে বেরিয়ে আসতে পেরেছি।’

‘আমি এমপি হিসেবে নির্বাচিত হলে সবার আগে বাঙালি সংস্কৃতির সঙ্গে অন্যদের পরিচিত করাতে একনিষ্ঠভাবে কাজ করব। একই সঙ্গে প্রবাসী বাংলাদেশিদের বিভিন্ন দাবি আদায়ে সব রকম সহযোগিতা করব।’

শায়লার সমর্থকদের দাবি, বেলজিয়ামের পিভিডিএ পার্টির তরুণ রাজনৈতিক হিসেবে তিনি এরই মধ্যে ব্যাপক সুনাম ও পরিচিতি অর্জন করেছেন। তাছাড়া তিনি তার কর্ম ও প্রচেষ্টার মাধ্যমে গোটা ইউরোপে বাংলাদেশের মুখ উজ্জ্বল করে চলেছেন।

বেলজিয়াম পার্লামেন্ট নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী শায়লার বাড়ি বাংলাদেশের ঝালকাঠি জেলার নলছিটি উপজেলার দেওপাশা গ্রামে। তিনি শিক্ষা জীবনে বরিশাল সরস্বতী গার্লস হাইস্কুল থেকে ১৯৯৫ সালে এসএসসি এবং ১৯৯৭ সালে এইচএসসি ও ১৯৯৯ সালে ঢাকার মিরপুরে অবস্থিত সরকারি বাঙলা কলেজ থেকে বিএ ডিগ্রি অর্জন করেন।

পরবর্তীতে ২০০৫ সালে পরিবারের সঙ্গে তিনি বেলজিয়ামে যান। আর সেখানেই তিনি ২০১০ সালে বেলজিয়াম ওয়ার্কার্স পার্টিতে (পিভিডিএ) একজন সদস্য হিসেবে যোগ দেন