জয় দিয়ে মিশন শুরু বাংলাদেশের।

অনূর্ধ্ব- ১৯ বঙ্গমাতা আন্তর্জাতিক ফুটবল টুর্নামেন্টের নিজেদের  প্রথম খেলায় জয় দিয়েই শুরু করলো বাংলার মেয়েরা।

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে আরব আমিরাতকে ২-০ গোলে হারিয়ে শুভসূচনা করলো বাংলাদেশ।

শুরু থেকেই আক্রমনাত্মক ফুটবল খেলে বাংলাদেশ, তার ফল পেতে অবশ্য বেশি সময় অপেক্ষা করতে হয়নি দর্শকদের। ১২ মিনিটে স্বপ্নার বুদ্ধিদীপ্ত গোলে এগিয়ে যাওয়া। ডিফেন্ডার আঁখি খাতুনের এরিয়াল থ্রু, অফসাইড ফাঁদ ভেঙে দ্রুত গতিতে বের হয়ে বলের নিয়ন্ত্রণ নেন স্বপ্না। পোস্ট ছেড়ে বের হয়ে আসা আমিরাতের গোলরক্ষকের পাশ দিয়ে জালে, ১-০। মুহুর্মুহু আক্রমণের পর গোলের মুখ খুলে যাওয়ায় মনে হচ্ছিল, শুরু হয়ে গেল গোলের মিছিল। ১৮ মিনিটে অনায়াসে ব্যবধান ২-০ করতে পারতেন স্বপ্নাই। মারিয়া মান্দার ভলিতে ফাঁকা হয়ে যায় আমিরাতের রক্ষণভাগ। বলের নিয়ন্ত্রণও নিয়েছিলেন ভালো, কিন্তু শেষ মুহূর্তে তালগোল পাকিয়ে গোলরক্ষকের হাতে তুলে দেন বাংলাদেশ স্ট্রাইকার।

৩০ মিনিটে ২-০ করেন অধিনায়ক মৌসুমি। মনিকা চাকমার কর্নারে জটলা থেকে কৃষ্ণা রাণী সরকারের হেড গোল লাইনের প্রান্তে এসে পড়লে মৌসুমি হেড করে বল জালে পাঠান।
আর কোনো গোল না হওয়ায় অবশেষে ২-০ গোলের জয় নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছে মেয়েদের।

ঘরের মাঠে নিজেদের টুর্নামেন্টে জয় দিয়ে শুরু করতে পারার আনন্দ আছে। কিন্তু বাংলাদেশের মেয়েরা প্রত্যাশা পূরণ করতে পেরেছে বলে মনে হয় না। মাঠে নামার আগে বিশ্লেষণে ধরেই নেওয়া হয়েছিল, আরব আমিরাতকে গোল-বন্যায় ভাসিয়ে দেবে মৌসুমিরা। প্রতিপক্ষকে বাগে পেয়ে গোল হাতছাড়া করার মিছিলে তা আর হলো কোথায়। গোলাম রব্বানি ছোটনের শিষ্যদের পায়ে দেখা যায়নি সুন্দর ফুটবলের বিজ্ঞাপনও। তবে ঘরের মাঠে এত বড় টুর্নামেন্টের শুরুতে চাপ সামলে জয় দিয়ে শুরু করা গেছে। সুন্দর ফুটবলের জন্য টুর্নামেন্টের বাকিটা পথ তো পড়েই রইল।

আসলে বাংলাদেশের মেয়েরাই প্রত্যাশা বাড়িয়ে রেখেছে। নিকট অতীতে ফুটবলের সব সুখবর তো এদের ঘিরেই।তবে এই ফুটবলারদের ওপর ভরসা তাঁরা নিশ্চয়ই রাখবেন। বাংলাদেশ যে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য খেলছে এই টুর্নামেন্ট।

ছড়িয়ে দিনঃ