গ্যাসের দাম বাড়ানোর পাঁয়তারা রুখতে ও অবৈধ গণশুনানী বন্ধের দাবি

জনগণের পকেট কেটে গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি করা যাবে না,গ্যাসের দাম বাড়ানোর পাঁয়তারা রুখতে ও অবৈধ গণশুনানী বন্ধের দাবিতে সিপিবি ঢাকা কমিটির উদ্যোগে থানা ও উপজেলায় বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয় ।
বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি ( সিপিবি) ঢাকা কমিটির উদ্যোগে ঢাকা শহর ও সভার এলাকার বিক্ষোভ করা হয়। আজ ১২ এপ্রিল, বিকালে মিরপুর ১০ নম্বর গোল চত্বরে কাফরুল থানা উদ্যোগে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সিপিবি কাফরুল থানার সভাপতি সহিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সিপিবি ঢাকা কমিটির সাধারণ সম্পাদক ডা. সাজেদুল হক রুবেল, সিপিবি’র ঢাকা কমিটির সম্পাদক খান আসাদুজ্জামান মাসুম, সিপিবি কাফরুল থানার সাধারণ সম্পাদক রাসেল ইসলাম সুজন, সিপিবি ১৪নং ওয়ার্ড সম্পাদক আসাদুজ্জামান আজিম প্রমুখ।
সিপিবি ধানমন্ডি থানার উদ্যোগে ঢাকা ট্যানারি মোড়ে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয় সিপিবি ধানমন্ডি থানার সভাপতি শংকর আচার্য্য-এর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন সিপিবি ঢাকা কমিটির সম্পাদক লুনা নূর, কৃষক সমিতি নেতা শরিফুজ্জামান শরিফ, সিপিবি ঢাকা কমিটির নেতা মনিষা মজুমদার, আক্তার হোসেন সিপিবি নেতা দিলিপ ব্যাপারি, শ্রমিক নেতা আফতাহার আলী প্রমুখ ।
সিপিবি সাভার উপজেলা কমিটির উদ্যোগে সভার সিটি সেন্টারের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয় সিপিবি সভার থানার নেতা সাইফুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন সিপিবি ঢাকা কমিটির নেতা আসলাম খান, কে এম মিন্টু, সিপিবি উপজেলার সাধারণ সম্পাদক সাজেদা বেগম সাজু, সাভারের নেতা ইঞ্জিনিয়ার রুহুল আমিন, ফজলু খন্দকার, এমাদুল ইসলাম এমদাদ প্রমুখ।
সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেন, গৃহস্থালী সংযোগের ক্ষেত্রে গ্যাস মূল্য অস্বাভাবিকভাবে বৃদ্ধির উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে। এক চুলার ক্ষেত্রে সাতশত পঞ্চাশ টাকা থেকে বাড়িয়ে তেরশত পঞ্চাশ টাকা, দুই চুলার ক্ষেত্রে আটশত পঞ্চাশ টাকা থেকে বাড়িয়ে চৌদ্দশত চল্লিশ টাকা করার কথা বলছে। এ মূল্য বাড়ানোর চক্রান্ত প্রতিরোধ করা হবে। রাজউকের অপরিকল্পিত নগরায়ন ঢাকা মৃত্যুফাঁদে পরিণত হয়েছে। অন্যদিকে বস্তিসমূহে আগুন লাগানো হচ্ছে যা অমানবিক। নিষ্ঠুর মুনাফাখোরদের লোভের শিকার।
সমাবেশে নেতৃবৃন্দ আরও বলেন, প্রতিদিন রাস্তাঘাটে দুর্ঘটনা রোধে কোন কার্যকর উদ্যোগ গ্রহণ করা হচ্ছে না। মাফিয়া চক্রের কাছে বন্দি সরকার।
ভোটারবিহীন নির্বাচনের মাধ্যমে বর্তমান সরকার জনগণের কাছে কোন দায়বদ্ধতা নেই। লুটেরাগোষ্ঠীর লুটপাটতন্ত্রের পাহারাদার সরকারের বিরুদ্ধে গণপ্রতিরোধ গড়ে তোলার জন্য জনগণের প্রতি আহ্বান জানানো হয়।
সমাবেশ শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।