আগামী ২৭-২৮ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ যুব মৈত্রীর ৮ম জাতীয় কাউন্সিল

সম্প্রতি বাংলাদেশ যুব মৈত্রীর কেন্দ্রীয় কমিটির ৫ম সভা যুব মৈত্রী কার্যালয়ে সংগঠনের সভাপতি সাব্বাহ আলী খান কলিন্সের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে বিস্তৃত আলোচনা হয়। সভায় নেতৃবৃন্দ বলেন, মুক্তিযুদ্ধ বিরোধী শক্তি বিএনপি-জামাত-কামাল হোসেন গং ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। বর্তমান সরকার জনগণ ও সাধারণ মানুষকে এক প্রকার উপেক্ষা করে আমলাতন্ত্রের উপর অতিমাত্রায় নির্ভরশীলতার কারণে সাধারণ মানুষের অধিকার ক্ষুন্ন হচ্ছে। সম্প্রতি মাদ্রাসা ছাত্রী নুসরাত হত্যায় ক্ষোভ ও ঘৃণা জানিয়ে নেতৃবৃন্দ বলেন দেশের মাদ্রাসাসহ সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কর্মরত শিক্ষকদের শুধুমাত্র শিক্ষক হওয়ার ক্ষেত্রে একাডেমিক সনদ যথেষ্ট নয়। যারা শিক্ষকতা করছেন বা করবেন তাদের শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্য পরীক্ষার একটি মানদ- প্রয়োজন বলে মনে করেন নেতৃবৃন্দ। জনজীবনের সংকট এখন প্রকট। আয় বৈষম্য ও বেকারত্ব আজকের অভিশাপ। এই অভিশাপ থেকে মুক্তি পেতে দেশের যুব সমাজকে ঐক্যবদ্ধ ও সোচ্চার এবং যুব মৈত্রী ঘোষিত ৫ দফা বেকারত্ব, দুর্নীতি, মাদক, জঙ্গিবাদ ও বৈষম্যের বিরুদ্ধে যুব আন্দোলন গড়ে তোলা আজ সময়ের দাবি। অসাম্প্রদায়িক-গণতান্ত্রিক রাজনীতির ধারা অব্যাহত রাখতে সরকার ইতোমধ্যে ব্যতয় ঘটিয়েছে। সাম্প্রদায়িক উস্কানি ও উন্মাদনা সমাজে প্রতীয়মান। সাম্প্রদায়িকতার আস্ফালন রুখতে সরকার ব্যর্থ। এই ব্যর্থতা জাতিকে চড়া মূল্য দিতে হবে বলে নেতৃবৃন্দ মনে করেন।
সাংগঠনিক আলোচনায় বলা হয়- ইতোমধ্যে কেন্দ্রীয় কমিটির মেয়াদ উত্তীর্ণ। কেন্দ্রীয় কমিটির সভায় সর্বসম্মতি ক্রমে আগামী ২৭-২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ঢাকায় ৮ম জাতীয় কাউন্সিল এর তারিখ ঘোষণা করা হয়।
ছড়িয়ে দিনঃ